Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / কিম জং আন: উত্তর কোরিয়ার নেতা কোথায় আছেন, তা নিয়ে গুজবের ধূম্রজাল

কিম জং আন: উত্তর কোরিয়ার নেতা কোথায় আছেন, তা নিয়ে গুজবের ধূম্রজাল

শনিবার ছিল ‌“কোরিয়ান পেপলস রেভোল্যুশনারি আর্মি”-র ৮৮তম বার্ষিকী। কিন্তু উত্তর কোরিয়ার সেনাবাহিনীর সাথে দিনটি উদযাপনের অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি কিম জং আন-কে।

গত ১৫ই এপ্রিল ছিল উত্তর কোরিয়ার সূর্য দিবস বা “ডে অব দ্য সান” – যা কিম জং আনের পিতামহ এবঙ উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল সুং-এর জন্মদিন।

কিন্তু ‌সেদিনের অনুষ্ঠানেও উপস্থিত ছিলেন না কিম জং আন।

ফলে তার কী হয়েছে তা নিয়ে ব্যাপক গুজব ছড়াচ্ছে চারদিকে।

এরই মধ্যে খবর পাওয়া গেছে যে চীন এমন একটি দল পাঠিয়েছে উত্তর কোরিয়ায় – যাতে চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা আছেন।

এসব খবরের সত্যতা কতটা, জানতে বিবিসির লিজ ডুসেট কথা বলেছেন এ্যানা ফিফিল্ড-এর সাথে – যিনি মার্কিন দৈনিক দি ওয়াশিংটন পোস্টের বেজিং ব্যুরোর প্রধান। কিম জং আনকে নিয়ে একই বইও লিখেছেন তিনি।
গত সপ্তাহের শেষ দিকেই দক্ষিণ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র থেকেও খবর পাওয়া গেছে যে কিম জং আনের স্বাস্থ্য নিয়ে কিছু একটা ঘটেছে।

তবে এ্যানা ফিফিল্ড বলছেন, উত্তর কোরিয়া এমন একটি দেশ যেখান থেকে সব সময় গুজব আসছে।

”সেখানকার কোন সামরিক কর্মকর্তা মারা গেছেন বলে হয়তো দক্ষিণ কোরিয়ায় খবর বের হলো – আর তার পরই দেখা গেল সেই কর্মকর্তা দিব্যি জীবিত হেঁটে-চলে বেড়াচ্ছেন,“ তিনি বলেন।

“তাই এসব গুজব নিশ্চিত করা প্রায় অসম্ভব। উত্তর কোরিয়া এ ক্ষেত্রে একটা ব্ল্যাক হোলের মতো,“ বলছেন তিনি।

“তবে এটা বলতেই হবে যে, কিম জং আনকে নিয়ে সম্প্রতি একের পর এক গুজব বের হচ্ছে – এবঙ তা আসছে একাধিক সূত্র থেকে। এ থেকে মনে হচ্ছে যে উত্তর কোরিয়ায় হয়তো সত্যি কিছু একটা ঘটেছে।“‍

এ্যানা ফিফিল্ড বলছেন, এমন মনে করার কারণ – উপরোক্ত দুটি অনুষ্ঠানে কিম জং আনের অনুপস্থিতি। কারণ এটা খুবই অস্বাভাবিক। তবে ঠিক কী ঘটেছে তা এখনো অজানা।
সম্প্রতি রয়টার্স বার্তা সংস্থা একটি রিপোর্টে বলেছে, কিম পরিবারের একটি অবকাশযাপন কেন্দ্রে কিছুদিন আগে এমন একটি ট্রেন দেখা গেছে – যা ওই পরিবার ব্যবহার করে।

উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকুলের ওই অবকাশ যাপন কেন্দ্রটি কিম জং আনের খুবই প্রিয় বলে জানা যায়।

ফলে এর অর্থ হতে পারে এই যে তিনি হয়তো সেখানে কোন অসুস্থতা থেকে সেরে ওঠার প্রক্রিয়ায় রয়েছেন – বলেন এ্যানা ফিফিল্ড।

তবে তিনি বলেন, অবশ্য এর এমন অর্থও হতে পারে যে কিম জং আন সেখানে সী-বিচে ছুটি কাটাচ্ছেন। অথবা হয়তো সেখানে কোন উপগ্রহ ব্যবস্থা স্থানান্তর করা হচ্ছে – যা তারা প্রায়ই করে থাকে। ফলে আসলেই ঠিক কি হচ্ছে – তা বলা কঠিন।

কিম জং আনকে সবশেষ প্রকাশ্যে দেখা যায় গত ১১ই এপ্রিল।

যারা সেই ছবি দেখেছেন তারা বলেন, তাকে দেখে তিনি ঠিক সুস্থ আছেন বলে মনে হচ্ছে না।

কিম জং আন এখন অনেক মোটা হয়ে গেছেন। তার জীবনযাপনও ঠিক স্বাস্থ্যসম্মত বলে মনে করা হয় না।সূত্র বিবিসি বাংলা

About ajkerdhaka24

Check Also

মিসরের সাবেক শাসক হোসনি মোবারক মারা গেছেন

মিসরে গণঅভ্যুত্থানের আগে তিনি প্রায় তিন দশক দেশটির ক্ষমতায় ছিলেন। ২০১১ সালে সেনাবাহিনীর হাতে ক্ষমতা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *