১২:৫৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টেনে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা আমির-কিরণের

  • বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : ০২:২০:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ এপ্রিল ২০২২
  • ২২৮ বার পঠিত

বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা আমির-কিরণের

১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টেনে বিবাহ বিচ্ছেদ করছেন আমির খান-কিরণ রাও। যৌথ বিবৃতি দিয়ে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘোষণা করলেন তাঁরা। যৌথ ভাবে দু’জনে ছেলে আজাদের দেখভালের দায়িত্ব পালন করবেন।

অমির-কিরণ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানান যে, এই ১৫ বছর ধরে হাসি-মজায় আমরা বহু স্মরণীয় মুহূর্ত কাটয়েছি এক সাথে। বিশ্বাস, সম্মান ও ভালবাসায় আমাদের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। এবার আমরা জীবনের আরও এক নতুন অধ্যায় শুরু করতে চাই। তবে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে নয়, অভিভাবক এবং পরস্পরের পরিবার হিসেবে। তাঁরা আরও লেখেন, ‘বহুদিন ধরেই আমরা বিচ্ছেদ পরিকল্পনা করছিলাম।

এখন আমরা দুজন এই সিদ্ধান্তে উপনিত হয়েছি যে, আগামী জীবন আলাদা ভাবে কাটাবো। তবে ছেলে আজাদের জন্য অভিভাবকের দায়িত্ব পালনে কোনও খামতি রাখব না আমরা। যৌথ লালন-পালনে তাকে বড় করে তুলব। চলচ্চিত্র, পানি ফাউন্ডেশন এবং অন্যান্য় প্রজেক্টে আমরা একসঙ্গেই আগের মতোই কাজ করব।’ শেষে তাঁদের পাশে থাকার জন্য পরিবার, বন্ধু ও শুভানুধ্যায়ীদের ধন্যবাদ জানান আমির খান ও কিরণ রাও।

Write Your Comment

About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি রয়েছে সৌম্যর সরকারের মধ্যে

নেত্রকোনা শহর রক্ষা বাধে ভাঙ্গন

১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টেনে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা আমির-কিরণের

আপডেট টাইম : ০২:২০:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ এপ্রিল ২০২২

১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টেনে বিবাহ বিচ্ছেদ করছেন আমির খান-কিরণ রাও। যৌথ বিবৃতি দিয়ে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘোষণা করলেন তাঁরা। যৌথ ভাবে দু’জনে ছেলে আজাদের দেখভালের দায়িত্ব পালন করবেন।

অমির-কিরণ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানান যে, এই ১৫ বছর ধরে হাসি-মজায় আমরা বহু স্মরণীয় মুহূর্ত কাটয়েছি এক সাথে। বিশ্বাস, সম্মান ও ভালবাসায় আমাদের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। এবার আমরা জীবনের আরও এক নতুন অধ্যায় শুরু করতে চাই। তবে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে নয়, অভিভাবক এবং পরস্পরের পরিবার হিসেবে। তাঁরা আরও লেখেন, ‘বহুদিন ধরেই আমরা বিচ্ছেদ পরিকল্পনা করছিলাম।

এখন আমরা দুজন এই সিদ্ধান্তে উপনিত হয়েছি যে, আগামী জীবন আলাদা ভাবে কাটাবো। তবে ছেলে আজাদের জন্য অভিভাবকের দায়িত্ব পালনে কোনও খামতি রাখব না আমরা। যৌথ লালন-পালনে তাকে বড় করে তুলব। চলচ্চিত্র, পানি ফাউন্ডেশন এবং অন্যান্য় প্রজেক্টে আমরা একসঙ্গেই আগের মতোই কাজ করব।’ শেষে তাঁদের পাশে থাকার জন্য পরিবার, বন্ধু ও শুভানুধ্যায়ীদের ধন্যবাদ জানান আমির খান ও কিরণ রাও।