০৬:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

যৌতুকের টাকা না পেয়ে বিয়ের আসর থেকে চলে গেলেন বর।

  • সময়ঃ ০৫:৩৭:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ৬৪ সময়
  • দিলীপ কুমার দাস বুরো প্রধান।

নেত্রকােনার কলমাকান্দা উপজেলায় বিয়ের খাওয়া-দাওয়া শেষে যৌতুকের টাকা না পেয়ে বিয়ের আসর থেকে চলে গেলেন বর। বর ছিলেন উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বামনগাঁও গ্রামের মো. শরীফ মিয়ার ছেলে মো. হাসেন মিয়া (২৫)।

এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে ভুক্তভাগী ওই তরুনীর বাবা বাদী হয়ে বর ও বরের বাবাসহ তিনজনকে অভিযুক্ত করে কলমাকান্দা থানায় একটি অভিযােগ দায়ের করেন। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে রংছাতি ইউনিয়নের বটতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় এক সপ্তাহ আগে কলমাকান্দা উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বামনগাঁও গ্রামের মো. শরীফ মিয়ার ছেলে মো. হাসেন মিয়ার বিয়ে ঠিক হয় পাশ্ববর্তী রংছাতি ইউনিয়নের বটতলা গ্রামের এক তরুনী সঙ্গে। বিয়ে ঠিক হওয়ার সময় কণের বাবা বিয়ের খরচ বাবদ বরের পরিবারকে ৪০ হাজার টাকা দেন। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে এ বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। ঠিক সময়মতাে বর তার আত্মীয় স্বজনসহ ৪০ জন বরযাত্রী নিয়ে আসেন।

খাওয়া-দাওয়া শেষে বিয়ের কার্যক্রম শুরু হলে বরের পক্ষ থেকে আরাে ৭০ হাজার টাকা যৌতুক চাওয়া হয়। যৌতুকের টাকা দিতে কনের পরিবার অস্বীকার করলে বিয়ের আসর থেকে বরের লােকজন বরকে নিয়ে চলে যান।

এবিয়ে উপলক্ষে ২ লাখ টাকা খাওয়া-দাওয়া ও ডেকােরেশন বাবদ খরচ হয় বলে অভিযােগে উল্লেখ করে কনের বাবা।

সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে অভিযুক্ত হাসেন মিয়ার নিকট মুঠাফােনে এ বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি তার মামা সবুজ মিয়ার নিকট ফােনটি দিয়ে দেন। পরে সবুজ মিয়া বলেন, দুপুরে বাড়িতে পুলিশ এসেছিল। তাদের কথামতাে আমরা বর ও কনের পক্ষের লােকজনের মধ্য সমঝােতা হয়। রাতে বরকে নিয়ে বিয়ে করাতে কনের বাড়িতে যাবেন বলেও তিনি জানান।

কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম বলেন, শুক্রবার দুপুরে অভিযােগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া

About Author Information

জনপ্রিয় নিউজ

অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক এবং শ্রীময়ী চট্টরাজের নতুন জীবন শুরু

যৌতুকের টাকা না পেয়ে বিয়ের আসর থেকে চলে গেলেন বর।

সময়ঃ ০৫:৩৭:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • দিলীপ কুমার দাস বুরো প্রধান।

নেত্রকােনার কলমাকান্দা উপজেলায় বিয়ের খাওয়া-দাওয়া শেষে যৌতুকের টাকা না পেয়ে বিয়ের আসর থেকে চলে গেলেন বর। বর ছিলেন উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বামনগাঁও গ্রামের মো. শরীফ মিয়ার ছেলে মো. হাসেন মিয়া (২৫)।

এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে ভুক্তভাগী ওই তরুনীর বাবা বাদী হয়ে বর ও বরের বাবাসহ তিনজনকে অভিযুক্ত করে কলমাকান্দা থানায় একটি অভিযােগ দায়ের করেন। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে রংছাতি ইউনিয়নের বটতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় এক সপ্তাহ আগে কলমাকান্দা উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বামনগাঁও গ্রামের মো. শরীফ মিয়ার ছেলে মো. হাসেন মিয়ার বিয়ে ঠিক হয় পাশ্ববর্তী রংছাতি ইউনিয়নের বটতলা গ্রামের এক তরুনী সঙ্গে। বিয়ে ঠিক হওয়ার সময় কণের বাবা বিয়ের খরচ বাবদ বরের পরিবারকে ৪০ হাজার টাকা দেন। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে এ বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। ঠিক সময়মতাে বর তার আত্মীয় স্বজনসহ ৪০ জন বরযাত্রী নিয়ে আসেন।

খাওয়া-দাওয়া শেষে বিয়ের কার্যক্রম শুরু হলে বরের পক্ষ থেকে আরাে ৭০ হাজার টাকা যৌতুক চাওয়া হয়। যৌতুকের টাকা দিতে কনের পরিবার অস্বীকার করলে বিয়ের আসর থেকে বরের লােকজন বরকে নিয়ে চলে যান।

এবিয়ে উপলক্ষে ২ লাখ টাকা খাওয়া-দাওয়া ও ডেকােরেশন বাবদ খরচ হয় বলে অভিযােগে উল্লেখ করে কনের বাবা।

সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে অভিযুক্ত হাসেন মিয়ার নিকট মুঠাফােনে এ বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি তার মামা সবুজ মিয়ার নিকট ফােনটি দিয়ে দেন। পরে সবুজ মিয়া বলেন, দুপুরে বাড়িতে পুলিশ এসেছিল। তাদের কথামতাে আমরা বর ও কনের পক্ষের লােকজনের মধ্য সমঝােতা হয়। রাতে বরকে নিয়ে বিয়ে করাতে কনের বাড়িতে যাবেন বলেও তিনি জানান।

কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম বলেন, শুক্রবার দুপুরে অভিযােগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া