০৪:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আকাশে শিশুর জন্ম

বিমানের মধ্যেই উঠলো প্রসব যন্ত্রণা,পাইলট এর সহযোগিতায় জন্ম নিল “স্কাই বেবি”

  • সময়ঃ ১২:৩২:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ মার্চ ২০২৪
  • ১২৪ সময়

অনলাইন ডেস্ক : মধ্য আকাশে বিমানের মধ্যেই উঠলো প্রসব যন্ত্রণা, আর সাহায্য করলেন বিমানের পাইলট। তাইওয়ানের তাইপেই থেকে থাইল্যান্ডের ব্যাংকক যাওয়ার ভিয়েতজেট ফ্লাইটে ঘটে যায় এই অবিশ্বাস্য ঘটনা।

কেবিন ক্রুরা যখন জানতে পারেন একজন যাত্রীর অপ্রত্যাশিতভাবে প্রসব যন্ত্রণা উঠেছে তখন তাঁরা সেই কথা পাইলটকে জানায়। এমন সময়ে দ্রুত এবং ভুল সিদ্ধান্ত না নিয়ে ঠান্ডা মাথায় সিদ্ধান্ত নেন জাকারিন সারানরাকসুল নামক পাইলট। বাচ্ছাটিকে জন্ম নিতে সাহায্য করেন।

মিঃ সারানরকসুল নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছেন, যেখানে সেই শিশুটিকে ধরে আছেন তিনি। তিনি লিখেছেন, ‘আমি ১৮ বছর ধরে পাইলট। আমি শুধুমাত্র বিমানে একটি নবজাতক শিশুকে জন্ম নিতে সাহায্য করেছি’। পাইলট জানান, ক্রুরা শিশুটির ডাকনাম রেখেছেন, ‘স্কাই বেবি’। এর আগে কখনই এই ধরনের কোনও কাজ করেননি, কখনও কোনও বাচ্ছার জন্মও দেননি তিনি।

প্যারামেডিকরা বিমান বন্দরেই অপেক্ষা করছিল, যাতে বিমানটি মাটি ছুঁতেই তাঁরা ওই বাচ্ছাটির চিকিৎসা করতে পারে।

বিমানের পাইলট নিজেকে নিয়ে গর্বিত যে তিনি একটি শিশুকে পৃথিবীতে আনতে পেরেছেন। নবজাতক শিশুটির সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘সে সারা জীবন সবাইকে বলতে পারবেন যে সে বাতাসে জন্মগ্রহণ করেছিলেন’। পাইলটের ইনস্টাগ্রাম পোস্টটি শীঘ্রই ভাইরাল হয়ে যায় এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য আসতে শরু করে। একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘আপনি খুব শান্ত! আমি আশা করি শিশুটি একটি চমৎকার জীবন পাবে।’

স্কাই নিউজের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, ১৯২৯ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে বাণিজ্যিক ফ্লাইটে ৭৪ জন শিশুর জন্ম হয়েছে। এই শিশু ৭৫ তম। সূত্র–জি নিউজ

About Author Information

জনপ্রিয় নিউজ

আকাশে শিশুর জন্ম

বিমানের মধ্যেই উঠলো প্রসব যন্ত্রণা,পাইলট এর সহযোগিতায় জন্ম নিল “স্কাই বেবি”

সময়ঃ ১২:৩২:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ মার্চ ২০২৪

অনলাইন ডেস্ক : মধ্য আকাশে বিমানের মধ্যেই উঠলো প্রসব যন্ত্রণা, আর সাহায্য করলেন বিমানের পাইলট। তাইওয়ানের তাইপেই থেকে থাইল্যান্ডের ব্যাংকক যাওয়ার ভিয়েতজেট ফ্লাইটে ঘটে যায় এই অবিশ্বাস্য ঘটনা।

কেবিন ক্রুরা যখন জানতে পারেন একজন যাত্রীর অপ্রত্যাশিতভাবে প্রসব যন্ত্রণা উঠেছে তখন তাঁরা সেই কথা পাইলটকে জানায়। এমন সময়ে দ্রুত এবং ভুল সিদ্ধান্ত না নিয়ে ঠান্ডা মাথায় সিদ্ধান্ত নেন জাকারিন সারানরাকসুল নামক পাইলট। বাচ্ছাটিকে জন্ম নিতে সাহায্য করেন।

মিঃ সারানরকসুল নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছেন, যেখানে সেই শিশুটিকে ধরে আছেন তিনি। তিনি লিখেছেন, ‘আমি ১৮ বছর ধরে পাইলট। আমি শুধুমাত্র বিমানে একটি নবজাতক শিশুকে জন্ম নিতে সাহায্য করেছি’। পাইলট জানান, ক্রুরা শিশুটির ডাকনাম রেখেছেন, ‘স্কাই বেবি’। এর আগে কখনই এই ধরনের কোনও কাজ করেননি, কখনও কোনও বাচ্ছার জন্মও দেননি তিনি।

প্যারামেডিকরা বিমান বন্দরেই অপেক্ষা করছিল, যাতে বিমানটি মাটি ছুঁতেই তাঁরা ওই বাচ্ছাটির চিকিৎসা করতে পারে।

বিমানের পাইলট নিজেকে নিয়ে গর্বিত যে তিনি একটি শিশুকে পৃথিবীতে আনতে পেরেছেন। নবজাতক শিশুটির সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘সে সারা জীবন সবাইকে বলতে পারবেন যে সে বাতাসে জন্মগ্রহণ করেছিলেন’। পাইলটের ইনস্টাগ্রাম পোস্টটি শীঘ্রই ভাইরাল হয়ে যায় এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য আসতে শরু করে। একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘আপনি খুব শান্ত! আমি আশা করি শিশুটি একটি চমৎকার জীবন পাবে।’

স্কাই নিউজের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, ১৯২৯ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে বাণিজ্যিক ফ্লাইটে ৭৪ জন শিশুর জন্ম হয়েছে। এই শিশু ৭৫ তম। সূত্র–জি নিউজ